সাধারণ মানসিক ক্ষমতা কাকে বলে এবং বৈশিষ্ট্য

টেলিগ্ৰামে জয়েন করুন

সাধারণ মানসিক ক্ষমতা কাকে বলে এবং বৈশিষ্ট্য

সাধারণ মানসিক ক্ষমতা কাকে বলে : সুপ্রিয় ছাত্রছাত্রীরা আজকের এই পর্বটিতে আমরা শেয়ার করলাম সাধারণ মানসিক ক্ষমতা কাকে বলে এবং সাধারণ মানসিক ক্ষমতার বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে।

সাধারণ মানসিক ক্ষমতা কাকে বলে :

স্পিয়ারম্যান শিক্ষার্থীদের পারদর্শিতার ওপর সমীক্ষা করে জটিল পরিসংখ্যানগত কৌশল উপাদান বিশ্লেষণের মাধ‍্য দিয়ে সিদ্ধান্তে এসেছেন যে সমস্ত রকমের বৌদ্ধিক কাজে কমবেশি একটি ক্ষমতার প্রয়োজন হয়। এই ক্ষমতাকে বলা হয় সাধারণ মানসিক ক্ষমতা বা ( GMA ) General Mental Ability । এই মানসিক ক্ষমতাকে তিনি সাধারণ উপাদান  বা সংক্ষেপে  G  বলেছেন। মনোবিদদের মতে সাধারণ মানসিক শক্তি বা G উপাদানই হল বুদ্ধি।

সাধারণ মানসিক ক্ষমতার বৈশিষ্ট্য :

সাধারণ মানসিক ক্ষমতার ধারণাটি আরও স্পষ্ট করতে গেলে এর বৈশিষ্ট্যগুলির প্রতি নজর দেওয়া প্রয়োজন। সাধারণ মানসিক ক্ষমতার গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য গুলি হল-

1. সর্বজনীন :

সমস্ত ব্যক্তিই কমবেশি সাধারণ মানসিক ক্ষমতার অধিকারী। সব ধরনের কাজে বিশেষ করে বৌদ্ধিক কাজে এই ক্ষমতার কমবেশি প্রয়োজন হয়। শিখন ও কর্মজীবনে সফলতা অর্জনে এই ক্ষমতার গুরুত্ব পরীক্ষা দ্বারা প্রমাণিত।

2. সহজাত :

সাধারণ মানসিক ক্ষমতা সহজাত অর্থাৎ জিনগতসূত্রে শিশু এই ক্ষমতার অধিকারী। একটা নির্দিষ্ট বয়স পর্যন্ত এই ক্ষমতা বিকশিত হয়। অধিকাংশ মনোবিদের মতে, সাধারণভাবে আঠারো বছর পর্যন্ত এই ক্ষমতার বিকাশ ঘটে। শৈশবে বিকাশের হার খুব বেশি থাকে। বাল্যকালে তা কিছুটা হ্রাস পায়, কৈশোরে আবার বৃদ্ধি পায় এবং তার পরে ওই ক্ষমতার আর বিকাশ ঘটে না।

3. মনোবৈজ্ঞানিক ধারণা :

সাধারণ মানসিক ক্ষমতা মনো বৈজ্ঞানিক ধারণামাত্র। এর গঠন সম্পর্কে এখনও তেমন বিশেষ কিছু জানা যায়নি। বিজ্ঞানীরা মনে করেন গুরুমস্তিষ্কের ভাঁজের সঙ্গে এর একটা ইতিবাচক সম্পর্ক আছে।

পড়ুন : স্মৃতি কি ? 

4. অনুশীলননিরপেক্ষ :

অনুশীলনের দ্বারা এই ক্ষমতা বৃদ্ধি করা সম্ভব নয়। শিশু যে পরিমাণ সাধারণ মানসিক ক্ষমতা নিয়ে জন্মগ্রহণ করে তার বৃদ্ধি করা সম্ভব হয় না

5. ব্যক্তিভেদে পরিবর্তনশীল :

ব্যক্তিভেদে সাধারণ মানসিক ক্ষমতার পরিবর্তন ঘটে। বেশিরভাগ ব্যক্তিই গড় মানসিক ক্ষমতাসম্পন্ন হয়।

6. দুই প্রকার :

মনোবিজ্ঞানে সাধারণ মানসিক ক্ষমতাকে দুটি ভাগে ভাগ করা হয়- মূর্ত ও বিমূর্ত। বস্তুধর্মী ও হাতেনাতে কাজ করতে মূর্ত সাধারণ ক্ষমতা ব্যবহৃত হয়। বিমূর্ত চিন্তা সমস্যাসমাধান প্রভৃতি কাজে যে সাধারণ মানসিক ক্ষমতার প্রয়োজন হয় তাকে বিমূর্ত সাধারণ মানসিক ক্ষমতা বলে।

7. পরিমাপযোগ্য :

সাধারণ মানসিক ক্ষমতা পরিমাপযোগ্য। এর পরিমাপের জন্য একাধিক অভীক্ষা প্রস্তুত হয়েছে , যাকে আমরা বুদ্ধি অভীক্ষা বলি।

8. একাধিক মৌলিক ক্ষমতার সমন্বয় :

মনোবিদদের মতানুসারে সাধারণ মানসিক ক্ষমতার মধ্যে কয়েকটি মৌলিক ক্ষমতা দেখা যায়। গিলফোর্ড বুদ্ধি বা সাধারণ মানসিক ক্ষমতার মধ্যে 150 টি উপাদান আছে বলে মন্তব্য করেছেন।

সাধারণ মানসিক ক্ষমতার আলোচনার মাধ‍্যমে এগ সিদ্ধান্তে উপনিত হওয়া যায় যে, শিখনের সঙ্গে এর সম্পর্ক গভীর। শিক্ষণীয় বিষয়বস্তু শিক্ষাপদ্ধতি ইত্যাদির পরিকল্পনা করতে গিয়ে শিক্ষার্থীদের সাধারণ মানসিক ক্ষমতার ওপর বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া প্রয়োজন।

আরও পড়ুন :

আগ্ৰহ কাকে বলে ? আগ্ৰহের শ্রেণীবিভাগ ও বৈশিষ্ট্য 

1 thought on “সাধারণ মানসিক ক্ষমতা কাকে বলে এবং বৈশিষ্ট্য”

Leave a Comment