অস্থানিক মূল কাকে বলে ? অস্থানিক মূলের শ্রেণীবিভাগ

টেলিগ্ৰামে জয়েন করুন

অস্থানিক মূল কাকে বলে  – Adventitious Root : সুপ্রিয় ছাত্রছাত্রীরা আজকের এই পর্বটিতে শেয়ার করলাম অস্থানিক মূল কাকে বলে এবং অস্থানিক মূলের শ্রেণীবিভাগ সম্পর্কে।

অস্থানিক মূল কাকে বলে ? অস্থানিক মূলের শ্রেণীবিভাগ

অস্থানিক মূল কাকে বলে :

ভূণমূল ছাড়া উদ্ভিদের অন্য কোনো অংশ থেকে (কাণ্ড, পাতা, শাখা প্রভৃতি) সৃষ্ট মূলকে অস্থানিক মূল বলে।

একবীজপত্রী উদ্ভিদের ভ্রূণমূল থেকে সৃষ্ট প্রাথমিক মূল নষ্ট হয়ে গিয়ে কাণ্ডের নিম্নাংশ থেকে অস্থানিক মূল সৃষ্টি হয়। এ ছাড়া বিভিন্ন উদ্ভিদের কাণ্ড, শাখা বা পাতা থেকেও অস্থানিক মূল সৃষ্টি হয়। অস্থানিক মূল  তিন প্রকারের যথ- 1. গুচ্ছ মূল 2. পত্রজ মূল এবং 3. কান্ডজ মূল বা প্রকৃত অস্থানিক মূল।

1.গুচ্ছ মূল কাকে বলে :

একবীজপত্রী উদ্ভিদের প্রাথমিক মূল নষ্ট হয়ে গিয়ে ভ্রূণমূল ও ভ্রূণমুকুলের সংযোগস্থল থেকে অস্থায়ী কতকগুলি সরু মূল নির্গত হয়- এদের মৌলিক মূল বা সেমিনাল মূল বলে। এই মূলগুলি কিছুদিন পর নষ্ট হয়ে গিয়ে বীজপত্রাবকাণ্ড থেকে অসংখ্য সরু সরু সুতোর মতো মূল গুচ্ছাকারে উৎপন্ন হয় ; এদের গুচ্ছ মূল বা শিফা মূল বলে। এইপ্রকার মূল একত্রে মিলিত হয়ে গুচ্ছ মূল তন্ত্র গঠন করে। •

উদাহরণ : ধান, গম, ভুট্টা, আখ, পিঁয়াজ প্রভৃতি একবীজপত্রী উদ্ভিদের গুচ্ছমূল বর্তমান।

2.পত্রজ মূল কাকে বলে :

পাতার ফলকের কিনারা থেকে উৎপন্ন অস্থানিক মূলকে পত্রজ বা পত্রাশ্রয়ী মূল বলে।

উদাহরণ : পাথরকুচি, বিগোনিয়া প্রভৃতি গাছের পাতায় উৎপন্ন মূল।

3.কান্ডজ মূল কাকে বলে :

কাণ্ডের পর্ব থেকে উৎপন্ন মূলকে কাণ্ডজ বা প্রকৃত অস্থানিক মূল বলে।

উদাহরণ : কেয়া ,বট, পান ইত্যাদি উদ্ভিদের কাণ্ডের পর্ব থেকে উৎপন্ন মূল।

আরও পড়ুন :

মূল কাকে বলে ? মূলের প্রকারভেদ, বৈশিষ্ট্য ও কাজ ?  

প্রধান বা স্থানিক মূল কাকে বলে ? 

Leave a Comment